Habibur Rahman

ঝিকরগাছায় বৃদ্ধা মহিলার লাশকে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ

মিলন কবির স্টাফ রিপোর্টার: যশোরের ঝিকরগাছায় এক বৃদ্ধা মহিলার মরদেহকে পুঁজি করে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কথিত ওই সাংবাদিকরা মৃত বৃদ্ধার ছেলের কাছ থেকে ৩৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এতে সংশ্লিষ্ট এলাকায় নিন্দার ঝড় বইছে।

জানা গেছে, উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের বড় পোদাউলিয়া গ্রামের মৃত মতিয়ার রহমান বিশ্বাসের স্ত্রী হাসিনা বেগম (৫৭) শুক্রবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাঁর এই মৃত্যুকে অস্বাভাবিক প্রচার করে স্থানীয় একটি কুচক্রীমহল ষড়যন্ত্র করে। একপর্যায়ে মহলটি বৃদ্ধাকে তাঁর ছেলে হাসান আলী পিটিয়ে হত্যা করেছে মর্মে বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দেয়। খবর পেয়ে বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেদ্রের ইনচার্জ রিপন বালা ও এস আই হাফিজুর রহমান ঘটনাস্থলে যান। এসময় সেখানে হাজির হন শহিদুল ইসলাম, সেলিম হোসেন ও কামাল হোসেন। এরা নিজেদেরকে শার্শার বাঁগআচড়া প্রেসক্লাবের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সংবাদ পত্রের সাংবাদিক পরিচয় দেয়। একপর্যায়ে তাঁরা ওই কৃচক্রীমহলের যোগসাজসে মৃত বৃদ্ধার পরিবারের কাছ থেকে পুলিশের নাম করে ও পত্রিকায় সংবাদ না লেখার কথা বলে ৩৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

মৃত বৃদ্ধার স্বামীর বড় ভাই (ভাসুর) দ্বীন ইসলাম বলেন, পুলিশি ঝামেলা এড়াতে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য জাহান আলীর নিকট ৫ হাজার টাকা নিয়েছেন। এ ছাড়া মৃত বৃদ্ধার ছেলের মামা শ্বশুর কুলবাড়িয়া গ্রামের বজলুর রহমানের মাধ্যেমে কথিত সাংবাদিকরা আরও ৩৪ হাজার টাকা নিয়েছে।

এ বিষয়ে সাবেক ইউপি সদস্য জাহান আলী টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ৫ হাজার টাকা তিনি স্থানীয় ছেলেদের দিয়েছেন।

সাংবাদিক পরিচয়ধারী শহিদুল ইসলাম মোবাইল ফোনে বলেন, টাকা স্থানীয় সাবেক ও বর্তমান সদস্যরা নিয়েছেন। আমরা কিছু খরচ নিয়েছি।

বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি রিপন বালা বলেন, মৃত বৃদ্ধার শরীরে কোন আঘাতের চিহৃ না থাকায় দাফন করতে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় কারো সাথে কোন টাকা-পয়সা লেনদেন না করার জন্যও বলা হয়েছে।

admin: